Skip to main content

রেল বিকাশ নিগম শেয়ার আন্যালিসিস : এখন কি এন্ট্রি নেওয়া যায় ?

রেল বিকাশ নিগম শেয়ার এনালিসিস ডিটেলস আলোচনা করা হলো এখানে। এখন কি এন্ট্রি নেওয়া সঠিক সময় ? 

ভারত সরকার রেলওয়ে সেক্টরের উপরে বেশি  নজর দেওয়ার পর থেকে রেল বিকাশ নিগম কোম্পানির স্টক (Rail Vikas Nigom Share) প্রাইসটি অনেকটাই বেড়ে গেছে। রেল বিকাশ নিগম কোম্পানিটি ভারত সরকারের একটি কোম্পানি যেটি রেলের  ইনফ্রাস্ট্রাকচার, নতুন রেললাইন ব্রিজ তৈরি  বিভিন্ন কাজ করে থাকে। 

রেল বিকাশ নিগম শেয়ার আন্যালিসিস


Telegram Channel  Join Now

রেল বিকাশ নিগম শেয়ার আন্যালিসিস 

ফান্ডামেন্টাল পয়েন্টস: 

  • Market Capacity: 34,789 cr.
  • Stock PE: 23.7
  • 5 years Median PE: 6.6
  • 3 Years Median PE: 6.8 
  • Book Value: 35.1
  • ROE: 20.8%
  • ROCE: 17.8% 
  • EPS: 7.03
  • Cash Flow: -4,137 Cr.
  • Debt to Equity: 0.88
  • PEG Ratio: 1.17

ফান্ডামেন্টাল পর্যবেক্ষণ : বর্তমানে কোম্পানিটির PE রেসিও 23.7। কিন্তু লক্ষ্য করুন কম্পানিটির ৫ বছরের মিডিয়ান PE - 6.6। অর্থাৎ কোম্পানিটি তার মিডিয়ান PE এর থেকে অনেক বেশি উপরে ট্রেড করছে অর্থাৎ ওভার   ভ্যালুয়েশনের ট্রেড করছে। এটি একটি নেগেটিভ পয়েন্ট। কোম্পানি তার বুক ভ্যালু থেকেও অনেক উপরে ট্রেড করছে। রেল বিকাশ নিজাম কোম্পানিটি লাস্ট এক বছরে ৩৭৪% রিটার্ন দিয়ে দিয়েছে। কোম্পানির ক্যাশ ফ্লো নেগেটিভ, কোম্পানি যেহেতু সরকারের অধীনে তাই এটিকে আমরা ছাড় দিতে পারি। কোম্পানি প্রফিটেবল ও FII, DII এর ইনভেস্টমেন্ট আছে কোম্পানি তে। 

বক্তব্য: কোম্পানি ফান্ডামেন্টালি ঠিক হলেও  ওভার ভ্যালুয়েশনে ট্রেড করছে এবং অলরেডি কোম্পানি ৩৭৪% রিটার্ন দিয়ে দিয়েছে। কোন কোম্পানির PE তার মিডিয়াম PE এর নিচে যদি ট্রেড করে তাহলে সেটা আন্ডার ভ্যালুড কোম্পানি হিসেবে ধরা হয়। আপনি যদি বড় বড় প্রফিট স্টক মার্কেট থেকে পেতে চান তাহলে আপনাকে আন্ডারভ্যালুড ফান্ডামেন্টালি ভালো কোম্পানি খুঁজে বের করতে হবে ও এনালাইসিস করতে হবে। [ Median PE কাছাকাছি যদি কোম্পানির PE থাকে তাহলেও সেটা ফেয়ার ভ্যালু ] 

আরও পড়ুন : ক্লিক করুন - শেয়ার বাজারে সর্বনিম্ন কত টাকা বিনিয়োগ করা যায় ? 

আরও পড়ুন : ক্লিক করুন - শেয়ার কেনার কত দিন পর বিক্রি করা যায় :  কখন বিক্রি করা উচিত ? 

আরও পড়ুন : শেয়ার মার্কেট কি? কিভাবে শুরু করবো ? 


রেল বিকাশ নিগম শেয়ার টেকনিক্যাল এনালিসিস : 

Stock Name : Rail Vikas Nigam

Time Frame : Daily Candle

পর্যবেক্ষণ :  রেল বিকাশ নিগম কোম্পানি অল টাইম হাই থেকে ২০% ডাউন এ ট্রেড করছে। 

  • 1st Support : 145-148
  • 2nd Strong Support : 110-118

আপনি যদি টেকনিক্যাল এনালাইসিস জানেন তাহলে এই চার্ট দেখেই বুঝতেই পারছেন যে স্টক রেজিস্ট্যান্স এর কাছেও নেই এবং সাপোর্ট জোনের কাছেও নেই। সুইং ট্রেড এর ক্ষেত্রে সাধারণত ব্রেক আউট স্ট্র্যাটেজি ফলো করা হয়, অথবা সাপোর্ট জোনের কাছে এন্ট্রি নেওয়া যেতে পারে। মনে রাখবেন সুইং ট্রেডে অবশ্যই স্টপ লস ( Stop Loss) দিয়ে ট্রেড নেবেন। 

Disclaimer:  Share Market Bangla সেবি ( SEBI) রেজিস্টার্ড নয়। এই অ্যানালাইসিস সম্পূর্ণ ভাবে এডুকেশনাল এর জন্যে। Share Market Bangla কখনো কোনো স্টক Buy/ Sell সুপারিশ দেয় না। কোন শেয়ার কেনা বা বিক্রির আগে অবশ্যই নিজে এনালাইসিস করুন বা আপনার financial adviser এর পরামর্শ নিন।


Comments

Popular posts from this blog

শেয়ার মার্কেটে ট্রেডিং কি ,কত প্রকার, ট্রেডিং এর সুবিধা ও অসুবিধা | What Is Trading In Bengali

শেয়ার মার্কেটে ট্রেডিং কি , কতপ্রকার ট্রেডিং ( Trading ) হয় এবং ট্রেডিং সুবিধা ও অসুবিধা এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে, নিচের এই নিবন্ধ টি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।  Table Of Contents বর্তমান সময়ে, তরুণ প্রজন্ম এর কাছে ট্রেডিং ( Trading ) শব্দ টি খুবই জনপ্রিয় হয়েছে। প্রত্যেকেই শেয়ার মার্কেট ( Share Market ) থেকে ট্রেডিং করে ইনকাম করতে চাইছে। চারিদিক এ ট্রেডিং এর কোর্স ( Trading Online Course) বিক্রি হচ্ছে। তাই , আজ আপনাদের  কাছে ট্রেডিং কি , এবং কতপ্রকার ট্রেডিং শেয়ার মার্কেট এ করা যায়, সেসব সম্পর্কে বিস্তারিত বিষয় তুলে ধরবো।  শেয়ার মার্কেটে ট্রেডিং কি ? [ What Is Trading in Bengali ] শেয়ার মার্কেটে অল্প সময়ের জন্য কোনো কোম্পানির শেয়ার কেনা - বেচা ( Buy - Sell) কে ট্রেডিং বলা হয়। আপনি আজই কোনো কোম্পানির শেয়ার কিনে আজকেই বিক্রি অথবা, ২ দিন পর বা ১ মাস পর বিক্রি করতে পারেন, এটিকেই সহজ ভাষায় ট্রেডিং হবে। ট্রেডিং মূলত টেকনিক্যাল এনালাইসিস ( Technical Analysis) নির্ভর। শেয়ার মার্কেটে ট্রেডিংয়ের জন্য কোম্পানির ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস এর উপরে বেশি গুরু

কিভাবে শেয়ার মার্কেটে/বাজারে ব্যবসা শুরু করব: A to Z গাইড

কিভাবে শেয়ার মার্কেটে /বাজারে ব্যবসা শুরু করব - সম্পূর্ণ গাইড আপনি এখানে পেয়ে যাবেন। Table Of Contents বর্তমানে সময়ে শেয়ার মার্কেট বা স্টক মার্কেট ( Stock Market ) ইনভেস্টিং, ট্রেডিং ( Trading ),  মিউচুয়াল ফান্ড ( Mutual Fund ) এই সমস্ত শব্দগুলি আস্তে আস্তে মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে। শেয়ার মার্কেটেও যে টাকা ইনভেস্ট করে সেটিকে আরো বড় ক্যাপিটাল তৈরি করা যায় মানুষ ধীরে ধীরে সেটি বুঝতে পারছে। এই নিবন্ধে আমরা দেখব কিভাবে শেয়ার মার্কেটে বা বাজারে ব্যবসা শুরু করতে হয় এবং এর প্রাথমিক পদক্ষেপ গুলি কি হতে পারে।  Telegram Channel  Join Now কিভাবে শেয়ার মার্কেট /বাজারে বিনিয়োগ শুরু করব ( How To Invest In Share Market )  বিগত কয়েক বছরে অনেক মানুষ শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে জানতে ইচ্ছুক প্রকাশ করছে এবং   প্রচুর মানুষ এই শেয়ার মার্কেটে টাকা ইনভেস্ট করেছেন। কিন্তু সব সময় মনে রাখবেন শেয়ার মার্কেট হলো একটি ঝুঁকিপূর্ণ লাভজনক ব্যবসা। তাই নতুনদের জন্য এখানে কিছু গাইড দেওয়া হল যে কিভাবে শেয়ার বাজারে আপনি বিনিয়োগ শুরু করবেন -  ১. শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে শ

শেয়ার কেনার নিয়ম - একটি সম্পূর্ন গাইড

আপনি কি শেয়ার কেনার নিয়ম জানতে চাইছেন?  তাহলে এই আর্টিকেলটি যত্ন সহকারে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। শেয়ার মার্কেটে ( Share Market) যারা নতুন নতুন বিনিয়োগ করতে চান তাদের কাছে এটা জানা খুবই জরুরী যে শেয়ার মার্কেট কি এবং শেয়ার কেনার নিয়মগুলি কি। এই নিবন্ধে আমি শেয়ার কেনার নিয়মগুলি সম্পর্কে একটি বিস্তারিত ধারণা দেবো এবং শেয়ার কেনার আগে কি কি বিষয়গুলি মাথায় রাখা উচিত এবং কেনার পর কোন বিষয়গুলি আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে সবকিছুই আপনি জানতে পারবেন। শেয়ার কেনার নিয়ম- একটি সম্পূর্ন গাইড শেয়ার মার্কেটে বিনিয়োগ ( Stock Market Investment) একটি লাভজনক ঝুঁকিপূর্ণ ব্যবসা। কিন্তু আপনি যদি সঠিকভাবে সবকিছু জেনে এবং বিশ্লেষণ করার পরে বিনিয়োগ করতে পারেন তাহলে মার্কেট থেকে আপনি সবসময় লাভবান হবেন। চলুন এবার জেনে নিন শেয়ার কেনার নিয়ম গুলি কি অর্থাৎ কি কি বিষয় আপনার মাথায় রাখতে হবে -  Telegram Channel  Join Now শেয়ার কেনা মানে কি ?  কোন কোম্পানির শেয়ার কেনা মানে হল সেই কোম্পানির অংশীদার হওয়া। অর্থাৎ সেই কোম্পানির কিছু অংশ আপনি টাকা দিয়ে কিনলেন। এবার বিভিন্ন কোম্পানির শেয়